প্রতিষ্ট ব্যবসায়ী আজ তিনি যোগ অনুশীলন চিকিৎসক

কোচবিহার:ছিলেন প্রতিষ্ট ব্যবসায়ী আজ তিনি যোগ অনুশীলন মাধ্যমে মানুষের চিকিৎসা করছেন। যদিও তার ব্যবসা আজকে সামলাচ্ছেন তার দুই পুত্র। ব্যবসায়ীর নাম সুরেন্দ্রকুমার রাঠি কোচবিহার জেলার দিনহাটা মহাকুমার গোসানি রোডের বাসিন্দা ছিলেন সার ব্যবসায়ী আজ তিনি যোগাসন অনুশীলনের মাধ্যমে মানুষের চিকিৎসা দিচ্ছেন। আমাদের কৌতূহল হয় কেন তিনি ব্যবসা ছেড়ে এই যোগ অনুশীলনের মাধ্যমে চিকিৎসা দিচ্ছেন। তাকে এই প্রশ্ন করায় সুরেন্দ্র বাবু জানান তার এর উপর কোন বিশ্বাস ছিল না যোগ অনুশীলনের মাধ্যমে মানুষের সব রকম চিকিৎসা হয়? বেশ কয়েক বছর আগে তিনি তার বোনকে চিকিৎসার জন্য বাইরে নিয়ে যায় এবং তার বোনের পেটের সমস্যা ছিল । ডাক্তারের সাথে কথা বলতে তার সময় লাগবে একদিন। এই বিষয় নিয়ে তার এক বন্ধুর সাথে কথা বলেন।সেই বন্ধু বলেন যোগব্যায়ামের এক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র আছে সেখানটা চিকিৎসা করলে তার এই পেটের রোগ ঠিক হয়ে যাবে । সুরেন্দ্র বাবু বন্ধুর কথা শুনে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি। কিন্তু বোনের পেটের ব্যথা মারাত্মক ভাবেই বেড়ে যাচ্ছিল। অবশেষে তিনি যোগ অনুশীলনের মাধ্যমে চিকিৎসার জন্য রাজি হন। তারপরেই বোনকে নিয়ে যোগ অনুশীলনে চলে যান তিনি। সেই চিকিৎসা নেওয়ার পর থেকে বোনের কোন পেটের ব্যথা আর উঠেনি।তিনি তারপরে বোনকে নিয়ে ফিরে আসেন দিনহাটায়। যোগ অনুশীলনের মধ্য দিয়েই তার বোনের চিকিৎসা চলছিল এবং তিনি কিছুদিন পর দেখেন তার বোন পুরোপুরি সুস্থ এবং তার অপারেশন করাতে হয়নি। তখন থেকেই তার মাথায় ভাবনা আসে আমি এই চিকিৎসার মাধ্যমে যেই উপকার পেয়েছি তা সব মানুষের কাছে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করবো। সেই কারণেই আজ গোসানি রোডে যোগ অনুশীলনের মাধ্যমে চিকিৎসা দিচ্ছি আমি। তিনি বলেন এই চিকিৎসার মাধ্যমে সব রকম রোগ ঠিক হয়ে যায়। হাই প্রেসার ব্লাড প্রেসার থেকে শুরু করে সমস্ত রোগ। চিকিৎসা নতুন নয়, মনি ঋষিরা এই চিকিৎসার মধ্যেই সুস্থ ছিলেন এবং এই চিকিৎসার মাধ্যমেই মানুষদের সুস্থ করতেন। তিনি চান এই চিকিৎসা যুবকেরা শিখুক এবং মানুষ কে সুস্থ করে তুলুক । রাজ্য সরকার এই সার্টিফিকেট দিবে বলেও তিনি বলেন। এই কাজ করে তিনি যে সুনাম পেয়েছেন তার প্রমাণ মিলেছে ওখানে এই চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের সাথে কথা বলে। বেশ কয়েকজন রোগীরদের সাথে কথা বলে যা জানতে পারা গেল সবাই এখন সুস্থ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.